শেয়াল দেবতা রহস্য -সত্যজিৎ রায় | Sheyal Debota Rahasya by Satyajit Ray

শেয়াল দেবতা রহস্য(Sheyal Debota Rahasya) সত্যজিৎ রায়(Satyajit Ray) এর ফেলুদা সিরিজের ছোটগল্প।এখান বইটি পিডিএফ(PDF) আকারে পড়া বা ডাউনলোড করা যাবে

ফেলুদার এখন ভালই নাম ডাক। নিয়মিত বিভিন্ন ক্লায়েন্টের ফোন আসে তার কাছে। এই ঘটনা যখন ঘটেছে তখন পূজোর ছুটি চলছে।

অম্বর সেন অন্তর্ধান রহস্য

বরাবর পূজোর ছুটিতে বাহিরে বেরোতে গেলেও এবার যাওয়া হয়নি। কিন্তু তাই বলে রহস্য তো আর পিছ ছাড়া হবে না?

ঘটনার সূত্রপাত এক টেলিফোন থেকে। নীলমনি বাবুর কাছে নিয়মিত হুমকি দিয়ে চিঠি আসছে। তাও নরমাল ভাষায় নয়। হায়ারোগ্লিফিক ভাষায়।

আদিত্য বর্ধনের আবিষ্কার

ঘটনার শুরু নিলামে শেয়াল দেবতার (অনুবিস/মৃত্যুর দেবতা) মূর্তি কেনার পর থেকে। এর পরতো নীলমনি বাবুকে হাত পা বেধে মূর্তি চুরিই হয়ে গেল। উদ্ধারে লেগে গেলেন ফেলু মিত্তর।

প্রদোষচন্দ্র মিত্র ওরফে ফেলুদা সত্যজিৎ রায় সৃষ্ট বাংলা সাহিত্যের একটি জনপ্রিয় কাল্পনিক গোয়েন্দা চরিত্র।১৯৬৫ সালের ডিসেম্বর মাসের সন্দেশ পত্রিকায় ফেলুদা সিরিজের প্রথম গল্প “ফেলুদার গোয়েন্দাগিরি” প্রকাশিত হয়।

১৯৬৫ থেকে ১৯৯৭ পর্যন্ত এই সিরিজের মোট ৩৫টি সম্পূর্ণ ও চারটি অসম্পূর্ণ গল্প ও উপন্যাস প্রকাশিত হয়েছে। ফেলুদার প্রধান সহকারী তাঁর খুড়তুতো ভাই তপেশরঞ্জন মিত্র ওরফে তোপসে ও লেখক লালমোহন গাঙ্গুলি (ছদ্মনাম জটায়ু)।

বাদশাহী আংটি

ফেলুদার চরিত্র নির্মাণে সত্যজিৎ রায় তার ছোটবেলায় পড়া শার্লক হোমস এর গোয়েন্দা গল্পের দ্বারা প্রভাবিত হয়েছিলেন। তাই ফেলুদার চরিত্রের সাথে অনেক জায়গায় আমরা হোমসের আর ফেলুদার ভাই ও সহকারি তোপসের সাথে হোমসের সহকারি ওয়াটসনের মিল পাই।

নিজের লেখা অধিকাংশ গল্পের বইয়ের মতই ফেলুদার বইতেও সত্যজিৎ রায় নিজেই প্রচ্ছদ ও অলংকরণ করতেন। সত্যজিৎ রায় ফেলুদার সোনার কেল্লা ও জয় বাবা ফেলুনাথ উপন্যাসদুটিকে চলচ্চিত্রায়িত করেন।

 যত কান্ড কাঠমান্ডুতে

এই দুই ছবিতে কিংবদন্তি চলচ্চিত্র অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ফেলুদার ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। আর তাই তার অধিকাংশ বইয়ের ফেলুদার ছবির অলংকরণে সৌমিত্র চট্টপাধায়ের আদলের ছাপ স্পষ্ট।

শেয়াল দেবতা রহস্য -সত্যজিৎ রায়

 Download or Read Online

Leave a Reply

Close Menu